• Friday, July 19, 2019

নওগাঁর ছেলে নগর বাউল জেমস এর জন্মদিন আজ

  • Oct 02, 2018

নগরবাউল জেমস-এর জন্মদিন আজ। জেমসের আসল নাম ফারুক মাহফুজ আনাম। তিনি তার ভক্তদের কাছে গুরু নামেও পরিচিত। তার জন্ম ১৯৬৪ সালে নওগাঁয়। পরে তিনি সঙ্গীতের নেশায় ঘর ছেড়ে চলে আসেন চট্টগ্রামে। পরবর্তীতে ১৯৮৫-৮৬ সালের দিকে চলে আসেন ঢাকায়। চট্টগ্রাম থেকে শুরু হওয়া ব্যান্ড দল ফিলিংস-এর মাধ্যমে তিনি প্রথম খ্যাতি অর্জন করেন। ফিলিংস থেকেই ১৯৮৭ সালে বের হয় প্রথম অ্যালবাম ‘স্টেশন রোড’।

১৯৯৮ সালে ‘লেইস ফিতা লেইস’ এর পর ফিলিংস পাল্টে হয়ে গেল নগর বাউল। তিনি নগর বাউল এর প্রতিষ্ঠাতা সদস্য। বাংলাদেশে তিনিই প্রথম চংুপযবফবষরপ ৎড়পশ শুরু করেন।২০০৫ সালে হিন্দি চলচ্চিত্র গ্যাংস্টারে প্লেবেকের মাধ্যমে জেমস প্রথম বলিউডে প্রবেশ করেন ‘ভিগি ভিগি’ গানের মাধ্যমে। তারপর ‘চল চলে’ (ও লামহে), ‘আলবিদা’ ও ‘রিস্তে’ (লাইফ ইন অ্যা মেট্রো)।

সম্প্রতি গুরমিত সিং পরিচালিত এবং প্রযোজক-পরিচালক অনুভব সিনহা প্রযোজিত বলিউডের নতুন চলচ্চিত্র ‘ওয়ার্নিং’-এ ‘বেবাসি’ শিরোনামের গানটিতে কণ্ঠ দিয়েই খবরের শিরোনাম হয়েছেন বাংলাদেশের নগর বাউল-খ্যাত জেমস। হিন্দি গান শুধু নয়, বাংলা রক গানেও বিভিন্ন এক্সপেরিমেন্ট করেন তিনি। রক গানের সঙ্গে অপেরা শিল্পী, বাঁশি আর হারমোনিয়ামের ফিউশন ঘটিয়েছেন। তার গানে মাদকতায় যুবসমাজ। নাগরিক জীবনের দুঃখ-কষ্ট যন্ত্রণা তার গানে ফুটে উঠে।

জেমস ১৯৮০ সালে প্রতিষ্ঠা করেন ব্যান্ড ‘ফিলিংস’। ১৯৮৭ সালে প্রথম অ্যালবাম ‘স্টেশন রোড’ প্রকাশ পায়। ১৯৮৮ সালে ‘অনন্যা’ নামের একক অ্যালবাম প্রকাশ করে সুপারহিট হয়ে যান জেমস। এরপর ১৯৯০ সালে ‘জেল থেকে বলছি’, ১৯৯৬ ‘নগর বাউল’, ১৯৯৮ সালে ‘লেইস ফিতা লেইস’, ১৯৯৯ সালে ‘কালেকশন অব ফিলিংস’ অ্যালবামগুলো প্রকাশ পায়। এরপর ‘ফিলিংস’ ভেঙে জেমস গড়ে তোলেন নতুন লাইনআপে ব্যান্ড ‘নগর বাউল’।

এই ব্যান্ড ‘দুষ্টু ছেলের দল’ এবং ‘বিজলি’ অ্যালবাম দুটির মধ্যেই আটকে যায়। এরপর একক অ্যালবাম হিসেবে প্রকাশ করেন ‘দুঃখিনী দুঃখ করো না’, ‘ঠিক আছে বন্ধু’, ‘আমি তোমাদেরই লোক’, ‘জনতা এক্সপ্রেস’, ‘তুফান’ এবং সর্বশেষ ‘কাল যমুনা’। এরপর গত প্রায় দশ বছর জেমস কিংবা নগর বাউলের নতুন কোনো অ্যালবাম প্রকাশ পায়নি।উল্লেখ্য, আজকের দিনটি তিনি বাসাতেই কাটাবেন। জন্মদিন উপলক্ষে তেমন কোনো আয়োজন নেই। খ্যাতিমান এ শিল্পীর জন্মদিনে দৈনিক আলোকিত চাঁপাইনবাবগঞ্জের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।