• Sunday, December 15, 2019

যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ভারত, চীন, সৌদিসহ বাংলাদেশের নির্বাচনের প্রশংসা বিভিন্ন দেশের

  • Jan 02, 2019

ভারত, চীন, কানাডা, সৌদি আরব, শ্রীলংকা, কাতার, নেপালসহ বিভিন্ন দেশ এবং সার্ক ও ইসলামী সহযোগিতা সংস্থার (ওআইসি), জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংগঠনের পর এবার বাংলাদেশের অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের প্রশংসা করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য ।

২০১৪ সালের দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন বয়কটের পর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রধান বিরোধীদের এই অংশগ্রহণ ইতিবাচক বলেও ব্যাখ্যা করে নির্বাচনে কোটি কোটি ভোটার ও সব প্রধান বিরোধী দলের অংশগ্রহণের প্রশংসা করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের উপ-মুখপাত্র রবার্ট পালাদিনো পহেলা জানুয়ারি বাংলাদেশের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন প্রসঙ্গে এসব কথা বলেন। ৩০ ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত ওই নির্বাচনে কোটি কোটি ভোটার ভোটাধিকার প্রয়োগ করায় এবং নির্বাচনে অংশ নেয়ায় সব দলকে ধন্যবাদ জানান পালাদিনো।

যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় বিদেশি বিনিয়োগকারী উল্লেখ করে পালাদিনো বলেন, বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ ও গণতান্ত্রিক উন্নয়নে বিনিয়োগ করতে আগ্রহী ওয়াশিংটন। অনেক বাংলাদেশি মার্কিন নাগরিকত্ব পেয়ে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছেন।

বাংলাদেশের প্রশংসা করে তিনি বলেন, অর্থনৈতিক উন্নতি, গণতন্ত্র ও মানবাধিকার নিয়ে বাংলাদেশের অভূতপূর্ব রেকর্ড রয়েছে। একইসঙ্গে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য অর্জনে ক্ষমতাসীন সরকারের সঙ্গে কাজ করতে যুক্তরাষ্ট্রের আগ্রহের কথা ব্যক্ত করেছেন পালাদিনো।

অন্যদিকে, মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে ব্রিটেনের এশিয়া বিষয়ক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মার্ক ফিল্ড বলেন, বাংলাদেশের সদ্য সমাপ্ত ভোটের বেসরকারি ফলাফল জানতে পেরেছি। নির্বাচনের আগে গ্রেফতার, বিরোধী দলগুলোর নির্বাচনি প্রচারে বাধা দেওয়া, ভোটের দিনের অনিয়মের কারণে কিছু মানুষকে ভোট দেওয়া থেকে বিরত রাখাসহ নির্বাচনের বিশ্বাসযোগ্য প্রতিবন্ধকতা সম্পর্কেও অবগত রয়েছি। নির্বাচনের এই অনিয়মগুলোর পূর্ণাঙ্গ, স্বচ্ছ এবং বিশ্বাসযোগ্য সমাধান করার জন্য সবার প্রতি আহবান থাকবে।

ভোটের দিনের সহিংসতায় হতাহতের ঘটনা এবং নির্বাচনি প্রচারণার সময়ের ভয়-ভীতি এবং সহিংসতার ঘটনা দুঃখজনক উল্লেখ করে মার্ক ফিল্ড বলেন, কার্যকর গণতন্ত্রের জন্য মুক্ত, অবাধ এবং সুষ্ঠু নির্বাচনের বিকল্প নেই। বাংলাদেশের জনগণের উন্নয়নের জন্য এখন সঠিক পথের সন্ধান করা সরকার এবং সবগুলো রাজনৈতিক দলের জন্য অতীব জরুরি কাজ।

বাংলাদেশ যুক্তরাজ্যের গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য প্রবাসী রয়েছে। স্থিতিশীল, সমৃদ্ধশালী এবং গণতান্ত্রিক ভবিষ্যত নির্মাণের প্রতি বাংলাদেশের জনগণের যে আকাঙ্ক্ষা তা পূরণ করতে যুক্তরাজ্যের সমর্থন অব্যাহত থাকবে।

সূত্র: বাংলা নিউজ পোস্ট