• Sunday, June 16, 2024

চাঁপাইনবাবগঞ্জে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সতর্ক অবস্থান

  • Oct 09, 2018

Spread the love

-২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায় বুধবার-

স্টাফ রিপোর্টার :  বুধবার ভয়াবহ বর্বরোচিত ও নৃশংস ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার ঘটনায় আনা পৃথক মামলার রায় ও আদেশের জন্য দিন ধার্য রয়েছে। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট নজীরবিহীন গ্রেনেড হামলার ঘটনায় আনা পৃথক মামলার বিচার শেষ হয় গত ১৮ সেপ্টেম্বর।

এ উপলক্ষে সারা দেশের ন্যায় চাঁপাইনবাবগঞ্জেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিশেষ ভাবে সতর্ক অবস্থানে রয়েছেন। পুলিশ সুপার টি এম মোজাহিদুল ইসলাম বিপিএম জানান, রায়কে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার বিকেল থেকেই চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিভিন্নস্থানে পুলিশের টহল জোরদার করা হয়েছে। এ ছাড়াও র‌্যাবও মাঠে কাজ করছে। রায়কে কেন্দ্র কওে কোন প্রকার সহিংসতা সয্য করা হবে না। পুলিশ সুপার আরো জানান, ইতোমধ্যেই শহর জুড়ে নিরাপত্তার স্বার্থে প্রেট্টোল টিম বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ রাস্তায় টহলে নিয়জিত আছেন।
রাজধানীর নাজিমউদ্দিন রোডে পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারের পাশে স্থাপিত ঢাকার ১ নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক শাহেদ নূর উদ্দিনের আদালতে একুশে আগস্টের ওই ঘটনায় আনা পৃথক মামলায় একই সঙ্গে বিচার অনুষ্টিত হয়।

ভয়াবহ, পৈশাচিক, নারকীয় ও বর্বরোচিত এই গ্রেনেড হামলার বিচারের জন্য দেশবাসীর প্রতীক্ষার অবসান হবে এই রায় ঘোষণার মাধ্যমে। ওই ঘৃণ্য হামলার পর বর্তমান প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেলেও মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও সাবেক রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমানের স্ত্রী আইভি রহমানসহ ২৪ জন নেতাকর্মী নিহত হয়। আহত হয় ৫ শতাধিক।

আসামিদের মধ্যে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বড় ছেলে ও বিএনপির সিনিয়র ভাইস (বর্তমানে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান) চেয়ারম্যান তারেক রহমান, সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর অন্যতম। সরকারি মদদে মামলা ভিন্নখাতে নেয়া, তদন্ত ও সাক্ষ্যগ্রহণের সুদীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে অবশেষে রায় হতে যাচ্ছে জঘন্যতম বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলার। অনেক আহত এখনো শরীরে স্প্রিন্টার নিয়ে ব্যথায় কাতরাচ্ছেন। আজও চোখের পানি ফেলে নিহতদের স্বজনরা। বিচারের জন্য তাদের দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান হচ্ছে বুধবার।