• Monday, April 15, 2024

চাঁপাইনবাবগঞ্জে শুরু খানা তথ্যভাণ্ডার শুমারি

  • Sep 27, 2018

স্টাফ রিপোর্টার :  চাঁপাইনবাবগঞ্জে বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়েছে খানা তথ্যভাণ্ডার শুমারি। সকালে র‌্যালির মধ্য দিয়ে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক এ জেড এম নূরুল হক।  জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে থেকে র‌্যালিটি বের হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে শেষ হয়। র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করেন জেলা প্রশাসক এ জেড এম নূরুল হক, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক ড. চিত্রলেখা নাজনীন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট দেবেন্দ্রনাথ উঁরাও, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোখলেশুর রহমান, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আলমগীর হোসেন, জেলা পরিসংখ্যান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক উম্মে কুলসুম, সদর উপজেলা পরিসংখ্যান অফিসার মাহমুদা খাতুন।

জেলা পরিসংখ্যান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক উম্মে কুলসুম জানান, জেলায় ৫টি উপজেলায় দুটি ভাগে গণনাকারীরা বাড়িবাড়ি গিয়ে প্রতিটি খানার তথ্য সংগ্রহ করবেন। নির্ভুল তথ্য সংগ্রহের জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর-নাচোল-গোমস্তাপুর উপজেলায় ১ হাজার ১৪৩ জন গণনাকারী ও ২০১ জন সুপারভাইজার নিয়োগ করা হয়েছে।

অপর দিকে শিবগঞ্জ-ভোলাহাট উপজেলায় ৮১২ জন গণনাকারী ও ১৭৩ জন সুপারভাইজার নিয়োগ করা হয়েছে। গণনাকারীরা প্রতিটি বাড়িতে গিয়ে খানা মালিকদের জাতীয় পরিচয়পত্র ও জন্ম নিবন্ধন দেখে গণনা কার্যক্রম পরিচালনা করবেন। সকল খানার আর্থ-সামাজিক অবস্থার তথ্য সংগ্রহের লক্ষে খানা শুমারি করা হচ্ছে। ন্যাশনাল হাউজ হোল্ড ডাটাবেজ প্রকল্পের আওতায় বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো, পরিসংখ্যান ও ত্যথ ব্যবস্থাপনা বিভাগ, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় এ কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। আগামী ১৬ অক্টোবর গণনা শেষ হবে। তথ্য সংগ্রহের সময় জাতীয় পরিচয়পত্র, জন্ম নিবন্ধনপত্র দেখিয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে গণনাকারীদের সাহায্য করার জন্য সকল জনসাধারনের কাছে সাহায্য কামনা করেন তিনি। এবার ৪ লক্ষাধিক খানা গণনা করা হবে বলে তিনি জানান। উল্লেখ্য, ২০১১ সালের শুরি অনুযায়ি জেলায় খানার সংখ্যা ছিল প্রায় ৩ লাখ ৫৭ হাজার ৯৮২টি।