• Monday, May 27, 2024

চিকিৎসার অভাবে মূমুর্ষ জাতীয় ক্রিকেটার রাজশাহীর চামেলি

  • Oct 29, 2018

Spread the love

বাংলাদেশ জাতীয় নারী দলের হয়ে ১৯৯৯ থেকে ২০১১ পর্যন্ত মাঠ মাতিয়ে বেড়িয়েছেন ক্রিকেটার রাজশাহীর চামেলি খাতুন। শুধু নারী দল নয় সমান তালে খেলেছেন ফুটবলও। পাশাপাশি অ্যাথলেটিক্সেও ছিলান সমান পারদর্শী।

কিন্তু তিনি গত ৮ বছর ধরে পড়ে আছেন বিছানায়। এক কথায় স্বাভাবিক চলাচল করতে পারছেন না চামেলি খাতুন নামের এই দাপুটে ক্রিকেটার। ২০১০ সালের বাংলাদেশের এশিয়া কাপের রানার আপ হওয়া দলের হয়ে মাঠ মাতান চামেলি।

 

 

 

 

 

রাজশাহী নগরীর দরগাপাড়া এলাকায় ক্রিকেটার চামেলী খাতুনের বাস। সেখানেই আছে তার পৈত্রীক বাড়িটি। দুই জানালা এক দরজার জরাজীর্ণ ছোট্ট একটি ঘরই এখন চামেলির পরিবারের ঠিকানা।

লিগামেন্ট ছিঁড়ে যাওয়াসহ মেরুদন্ডে হাড়ের ব্যথা নিয়ে বর্তমানে মূমুর্ষ অবস্থায় পৌছেঁছেন চামেলি। মেরুদন্ডে দুই হাড়ের ফাঁকে থাকা নরম ডিস্কগুলো নষ্ট হয়ে যাওয়ায় অবস হয়ে যাচ্ছে তার পুরো ডান পাশ।

এই অবস্থায় অতি স্বত্বর দেশের বাইরে নিয়ে গিয়ে সার্জারির পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসক। আর এই চিকিৎসার জন্য চামেলির প্রয়োজন কমপক্ষে ১০ লাখ টাকা। এ অর্থের জন্য তার চিকিৎসা হচ্ছে না। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডসহ সমাজের সকলের কাছে চিকিৎসার জন্য সাহায্য চেয়েছেন এই দাপুটে নারী ক্রিকেটার।

চামেলি খাতুন আনসার ভিডিপি অফিসে কর্মরত থাকলেও অসুস্থতার কারনে সেটিও নিয়মিত করতে পারছে না। ফলে মানবতর জীবনযান করছেন এই নারী ক্রিকেটার।