• Saturday, March 2, 2024

নওগাঁয় মনোনয়ন প্রত্যাশীর ওপর হামলা

  • Oct 02, 2018

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নওগাঁ-২ (পতœীতলা-ধামইরহাট) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী আওয়ামী লীগ নেতা ড. ইঞ্জিনিয়ার মোঃ আখতারুল আলমের ওপর হামলা চালিয়ে তাকেসহ তার ৬-৭ জন কর্মীকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেছে সরকার দলীয় হুইপের লোকজন। রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ড. ইঞ্জিনিয়ার আখতারুল আলম তার সঙ্গীদের নিয়ে নৌকার গনসংযোগ করতে গেলে পতœীতলা নতুন হাট এলাকায় তাদের ওপর হামলা চালায় জাতীয় সংসদের হুইপ স্থানীয় এমপি শহীদুজ্জামান সরকার বাবলুর খাস লোক বলে পরিচিত নজিপুর পৌর মেয়র রেজাউল কবীর চৌধুরী বাবুর নেতৃত্বে তার ক্যাডাররা। ঘটনায় এলাকার নৌকাভক্ত সাধারণ মানুষের মাঝে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

ওই আসনের নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ড. ইঞ্জিনিয়ার আখতারুল আলম জানান, তিনি শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে দীর্ঘদিন ধরে এলাকার সাধারণ মানুষকে নৌকায় ভোট দেয়ার জন্য জনসংযোগ, পথসভা, শোডাউন ও মতবিনিময় করে আসছেন বিভিন্ন স্থানে। রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে নজিপুর নতুন হাটে কর্মীদের সঙ্গে কথা বলার সময় আকস্মিকভাবে মেয়র রেজাউল কবীর চৌধুরী বালু বাবু তার ক্যাডারদের নিয়ে অকথ্য গালিগালাজ করে আমাদের লাঞ্ছিত করে। এ বিষয়ে থানায় ফোনে যোগাযোগ করলে পুলিশ তাদের সহযোগিতায় এগিয়ে আসেনি। এ সময় হামলাকারীরা বলে, এই আসনে হুইপ ছাড়া অন্য কেউ নৌকার প্রচারণা চালাতে পারবে না। সোমবার এ বিষয়ে পতœীতলা থানায় ফোনে যোগাযোগ করলে থানার ওসি (তদন্ত) জহুরুল হক জানান, ঘটনা শুনেছি। তবে এখনও কেউ অভিযোগ করেনি। এ বিষয়ে জাতীয় সংসদের হুইপ শহীদুজ্জামান সরকার বাবলু এমপির মুঠো ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ‘এলাকার সব লোকই তো আমার। তাছাড়া আমি ছাড়া নৌকার প্রচারণা কেউ করতে পারবে না, এমন কথা আমার নয়। সব মানুষের দায়ভার তো আমি নিতে পারি না। এমন কথা যদি কেউ বলে থাকে তো সে তার নিজ দায়িত্বে বলেছে’। উল্লেখ্য গত রমজানের ঈদের আগে থেকে পতœীতলায় নৌকার সমর্থনে কেউ পোস্টার লাগালে হুইপের সমর্থকরা সেসব পোস্টার ছিড়ে ফেলে।