• Thursday, May 30, 2024

নির্বাচন বর্জন ও অংশগ্রহণ নিয়ে মুখোমুখি অবস্থানে বিএনপি-ঐক্যফ্রন্ট

  • Dec 05, 2018

Spread the love

নিউজ ডেস্ক: যেকোন অবস্থাতেই নির্বাচনে যেতে চায় নির্বাচনমুখী জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। অন্যদিকে ২০ দলীয় জোট তথা বিএনপি সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন বর্জন করবে তারা। নির্বাচন নিয়ে ২০ দলীয় জোট এবং ঐক্যফ্রন্টের এমন সাংঘর্ষিক ও মুখোমুখি অবস্থান উভয় পক্ষের মধ্যে তৈরি করেছে সাংঘাতিক টানাপোড়েন। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, একই প্লাটফর্মে দাঁড়িয়ে থাকা দু’টি দলের মত ভিন্নতা উভয় পক্ষের মুখোশই খুলে দিয়েছে।

প্রসঙ্গত, ৩০ ডিসেম্বর রাত ৯টায় বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠক শেষে ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র ও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানিয়েছেন, ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট যেকোনও অবস্থাতেই নির্বাচনে থাকবে।

অন্যদিকে ২ ডিসেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে জোটের বৈঠক শেষে এলডিপির সভাপতি ও ২০ দলীয় জোটের প্রধান সমন্বয়ক কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বলেছেন, শেষ পর্যন্ত ২০ দলীয় জোটের নির্বাচনে থাকবে না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এমন প্রেক্ষাপটে ২০ দলীয় জোট এবং ঐক্যফ্রন্টের মধ্যে সাংঘর্ষিক অবস্থানকে উভয় পক্ষের রাজনৈতিক বিপর্যয় হিসেবে বর্ণনা করছে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। তারা বলছেন, জল ঘোলা করে মাছ শিকার করতে গিয়ে দুই পক্ষ যেভাবে সাংঘর্ষিক অবস্থানে দাঁড়িয়েছে তা ইতিহাসে ‘স্বার্থ গঠনের ফ্রন্ট’ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়ে থাকবে।

এ প্রসঙ্গে রাজনৈতিক বিশ্লেষক বিভুরঞ্জন সরকার বলেন, শুরুতে ২০ দলীয় জোট এবং জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট যে অন্তরঙ্গতা দেখিয়েছিলো তাতে মনে হচ্ছিলো তারা আসলে ‘একই বৃন্তে দু’টি কুসুম’। কিন্তু নানা টানাপোড়েন-বিভেদ সামনে আসলেও সেগুলোকে আড়াল করতে চেয়েছে তারা। কিন্তু নির্বাচনের দ্বারপ্রান্তে এসে বিএনপি এবং ঐক্যফ্রন্টে মধ্যে যে মতানৈক্য সামনে এসেছে তাতে তারা কোন পথ না পেয়ে পক্ষ-বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে। অন্তত এ অবস্থানে এই সত্য স্পষ্ট হয় যে, জাতীয় ঐক্যের নামে যূথবদ্ধ হয়ে তারা যে অবস্থান নিয়েছিলো তা ছিলো পর্দার সম্মুখ চিত্র। যা ক্রমেই সামনে চলে এসে বিভেদ তৈরি করেছে।

এদিকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র বানিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে দিয়ে ড. কামাল সাংঘর্ষিক বক্তব্য দিতে ইন্ধন যুগিয়ে যে খেলাটি খেলেছে তাতে হতবাক রাজনৈতিক মহল। বলা হচ্ছে, মির্জা ফখরুল এখন ড. কামালের পোষা বিড়াল। ড. কামাল যে ইশারা দেবেন, ফখরুল তা-ই করবেন।

সূত্র: বাংলা নিউজ পোস্ট