• Wednesday, May 29, 2024

পদ্মাপারে ৫২০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর নামে ক্রিকেট স্টেডিয়াম

  • Oct 29, 2018

Spread the love

ঢাকা থেকে প্রায় ৬০ কিলোমিটার দূরে মানিকগঞ্জে ক্রিকেট স্টেডিয়াম নির্মাণের স্বপ্ন দেখেন বাংলাদেশের প্রথম টেস্টের অধিনায়ক দুর্জয়। রাজনীতিক প্রয়াত বাবার পথ ধরে দুর্জয় এখন জাতীয় সংসদ সদস্য। তার স্বপ্ন খোদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনারও স্বপ্ন।

এদিকে চীনা স্টেট কন্সট্রাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং কর্পোরেশন লিমিটেড সিএসসিইসি যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সামনে স্টেডিয়াম নির্মাণের পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন দিয়েছিল গত ২০১৫ সালের ১১ আগস্ট।

এদিকে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীসহ মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের কর্মকর্তারা তিনদিন পর মানিকগঞ্জে পদ্মাপারে স্টেডিয়াম নির্মাণের জন্য জমিও দেখে আসেন। তাছাড়া গোটাচারেক জমি থেকে একটি স্থান চূড়ান্ত করা হয়েছে। কথা ছিল, প্রকল্পের সম্ভাব্যতা যাচাই করে রিপোর্ট দেয়ার জন্য। সে রিপোর্ট আজও তৈরি হয়নি।

দুর্জয়ের বলেন, কাজ একবার শুরু হলে বেশি সময় লাগবে না। আর এটা ছোটখাটো স্টেডিয়াম হবে না। অত্যাধুনিক আন্তর্জাতিকমানের সুযোগ-সুবিধা থাকবে এমন স্টেডিয়াম নির্মাণ করব আমরা। এটাই আমাদের স্বপ্ন।

বাংলাদেশের ক্রিকেট মানচিত্রে জুড়ে যাবে নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেনের জন্মস্থান মানিকগঞ্জ। তাছাড়া জানা গেছে গঙ্গাপারের ইডেনকে চ্যালেঞ্জ জানাতে তৈরি হচ্ছে পদ্মাপারের স্টেডিয়াম।

তিনি আরও বলেন, স্টেডিয়াম নির্মাণের ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী সম্মতি দিয়েছেন। যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির গত সভায় এ নিয়ে আলোচনা হয়েছে। কিন্তু কাজটি কেন যেন এগোচ্ছে না। আশা করছি প্রধানমন্ত্রীর নামের এই স্টেডিয়ামটি নির্মাণের ব্যাপারে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় আরও সক্রিয় হবে। জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ মানিকগঞ্জের পদ্মাপারে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম কমপ্লেক্স নির্মাণের জন্য ৫২০ কোটি টাকার পিডিপিপি তৈরি করেছিল। এখন শুধু কাজ শুরু হওয়ার বাকী।